সিনেমায় নয় বাস্তবে শাকিব খান আর বুবলী দুজনেই চুটিয়ে প্রেম করছেন

দেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান আর আলোচিত চিত্রনায়িকা বুবলী প্রেম করছেন? হ্যাঁ, তাঁরা নাকি দুজন চুটিয়ে প্রেম করছেন। চলচ্চিত্রপাড়ার মানুষের কাছে এমন খবর দিবালোকের মতো সত্য। প্রকাশ্যে বিষয়টি নিয়ে কেউ মুখ না খুললেও নাম প্রকাশ না করার শর্তে শাকিব ও বুবলী অভিনীত ছবির পরিচালক এই দুই নায়ক-নায়িকার প্রেমের সম্পর্কের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তাঁদের মতে, এখন চলচ্চিত্রে ভরসা করার মতো জুটি শাকিব খান ও বুবলী। তাঁরা প্রেম করতেই পারেন।

চলচ্চিত্রপাড়ার কেউ আবার কয়েক কাঠি সরেস, তাঁদের মতে, বুবলীর সঙ্গে শাকিব খানের গোপনে বিয়ে হয়ে গেছে! চলচ্চিত্রের স্বার্থেই বিষয়টি কেউ প্রকাশ করতে চান না। যেমনটা হয়েছিল আজ থেকে ১০ বছর আগে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের গোপন বিয়ের ক্ষেত্রেও।

শাকিব খান এখন ঢাকায়। শুটিং করছেন ‘ক্যাপ্টেন খান’ ছবির। এই ছবিতে শাকিবের নায়িকা যথারীতি বুবলী। সামনে কাজ শুরু করবেন ‘একটি প্রেম দরকার মাননীয় সরকার’ আর ‘প্রিয়তমা’ ছবির। এই দুটি ছবিতে নায়িকা বুবলী। একসময় সংবাদ উপস্থাপক ছিলেন শবনম ইয়াসমীন বুবলী। শোনা যায়, শাকিব খান বুবলীর পরিবারকে ম্যানেজ করে নায়িকা হিসেবে সবার সামনে তাঁকে নিয়ে আসেন। বুবলী তাঁর জীবনের প্রথম ছবি ‘বসগিরি’তে নায়ক হিসেবে পেয়েছেন শাকিব খানকে। এ পর্যন্ত রোজার ঈদ আর কোরবানির ঈদ ছাড়া অন্য কোনো সময় বুবলীর ছবি মুক্তি পায়নি। এরপরও আলোচিত তিনি। তিন ঈদে দুটি করে ছবি মুক্তি পায়, যা একজন নবাগত নায়িকার ক্ষেত্রে বিরল। ঈদের মতো বড় উৎসবে বুবলীর দুটি করে ছবি মুক্তি দেওয়ার ক্ষেত্রে শাকিব খান নাকি পরোক্ষভাবে প্রভাব বিস্তার করেন, যেমনটা ঘটেছিল তাঁর সাবেক স্ত্রী ও চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের ক্ষেত্রেও।

এবার রোজার ঈদে বাংলাভিশনে শাকিব খান ও বুবলীকে একটি অনুষ্ঠানে দেখা গেছে। ‘আনন্দময় দিনে শাকিব খানের সাথে’ নামের এই অনুষ্ঠানে বুবলী ও শাকিবের কথোপকথন থেকে অনেকে মন্তব্য করেছেন, তাঁরা দুজন প্রেম করছেন। তাঁদের মধ্যে যে একটা দারুণ সম্পর্ক আছে, তা এ অনুষ্ঠান দেখলে যে কেউ উপলব্ধি করতে পারবেন।

Shakib Khan Bubly
Shakib Khan Bubly

বুবলীর সঙ্গে প্রেম নিয়ে বিভিন্ন সময় শাকিব খানের সঙ্গে দেশের স্বনামধন্য গণমাধ্যম গুলোতে কথা হয়েছে। সব সময় তিনি বলেছেন, ‘আমার সহশিল্পী যাঁরা হন, আমার সঙ্গে যাঁরা কাজ করেন অথবা আমি যাঁদের সঙ্গে কাজ করি—তাঁদের সবার সঙ্গে আমার একটি সুন্দর সম্পর্ক তৈরি হয়ে যায়। আমি বিশ্বাস করি, একটি ভালো সম্পর্ক যদি দুজন শিল্পীর মধ্যে তৈরি না হয়, তাহলে সুন্দর একটি কাজ করতে পারব না। এটা সৃষ্টিশীল কাজ, এখানে নায়ক-নায়িকার বোঝাপড়া থাকতে হবে। ছেলে-ছেলে হোক কিংবা মেয়ে-মেয়ে হোক, যাঁরাই কাজ করেন—সুন্দর একটি বন্ধুত্বের মধ্য দিয়ে ভালো কাজ করার চেষ্টা করেন। এর বেশি কিছু বলার নেই।’

শুধু চলচ্চিত্রের মানুষ নয়, ভক্তদের মধ্যে এই দুজনের সম্পর্ক নিয়ে রয়েছে জোর গুঞ্জন। বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে দেখেছেন চিত্রনায়িকা বুবলী। তিনি বলেন, ‘এটা ঠিক, আমাদের সম্পর্ক নিয়ে দর্শকের অনেক আগ্রহ থাকে। তাঁরা নিজেরাই অনেক কিছু অনুমান করে ভাবতে থাকেন। কিছু ক্ষেত্রে কেউ কেউ অতি উৎসাহী হয়ে পড়েন। তা শিল্পীদের জন্য ইতিবাচক।’

শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ের সম্পর্ক থাকা অবস্থায় বুবলীর ওপর চড়াও হন অপু। গত বছর ১৮ মার্চ বুবলীর ফেসবুকে পোস্ট করা একটি ছবিকে কেন্দ্র করে এই পরিস্থিতির সূত্রপাত। পোস্ট করা সেই ছবিতে দেখা যায়, বুবলীর পারিবারিক অনুষ্ঠানে তাঁর পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে ‘নিপাট ভদ্র ছেলে’ শাকিব খান বসে আছেন। ক্যাপশনে লেখা ছিল ‘ফ্যামিলি টাইম’। এই ছবি দেখে অপু এতই ক্ষিপ্ত হয়েছিলেন যে বুবলীকে ফোন করে গালমন্দ পর্যন্ত করেছিলেন। তবে বিষয়টি শাকিব এড়িয়ে গেছেন। একপর্যায়ে শাকিব ও অপুর ছাড়াছাড়ি হয়। এর পেছনে অনেকে দায়ী করেন বুবলীকে।

একসময়ের সংবাদ উপস্থাপিকা বুবলীর প্রথম ছবি ‘বসগিরি’ ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়। একই সময়ে মুক্তি পায় ‘শুটার’ নামে আরেকটি ছবি। এরপর একে একে বুবলীর মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোর মধ্যে আছে ‘রংবাজ’, ‘অহংকার’, ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া’ ও ‘সুপার হিরো’।

Shakib Khan Bubly Super Hero

শাকিবের সঙ্গে পর্দায় আসার ব্যাপারটিকে ভাগ্য বলেও মনে করে বুবলী। তিনি বলেন, ‘আমাদের একেকটা চলচ্চিত্র একেক ধরনের। তাই তাঁর সঙ্গে বড় পর্দায় আসতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করছি। কারণ, শাকিব খান অনেক বড়মাপের অভিনেতা। তাঁর কাছ থেকে অনেক খুঁটিনাটি বিষয়ও শিখতে পারি।’ শাকিব খানের বাইরে অন্য নায়কের প্রসঙ্গ আসতেই এই নায়িকা বলেন, ‘আমি অন্য নায়কের সঙ্গে কাজ করব না, এটা বলিনি। হয়তো একটু দেরি হচ্ছে। যখন অন্য নায়কের সঙ্গে কাজ করব, সেটা চ্যালেঞ্জ নিয়েই করব।’

একসময় শাকিবের নায়িকা মানেই ঘুরে-ফিরে যেমন অপুর নাম উচ্চারিত হতো, এখন শাকিব মানেই বুবলী। বিবাহবিচ্ছেদের পর অপু বলেন, শাকিবের আপত্তির কারণেই অনেক প্রস্তাব সত্ত্বেও অন্য নায়কের সঙ্গে কাজ করতে পারতেন না তিনি। তা না হলে তাঁর অভিনীত ছবির সংখ্যা আরও বাড়ত। চলচ্চিত্রের অনেকে বলছেন, যে কথা কয়েক বছর আগে অপুর মুখ থেকে শোনা গেছে, সেই একই কথা এখন বলছেন বুবলীও—‘শাকিবের সঙ্গে তিনি কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। কারণ শাকিব ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক। তবে অন্য নায়কের সঙ্গে কাজ করতে তাঁর আপত্তি নেই।’

দেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে বুবলীর প্রেম-ভালোবাসার ব্যাপারটি আছে, কোনো একদিন অপুর মতো আচমকা লাইভ অনুষ্ঠানে তা বেরিয়েও আসতে পারে বলে জানান চলচ্চিত্রের কেউ কেউ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here