ভিনদেশে লড়লেও দেশে শাকিব খানের সাথে লড়বে কে?

shakib khan ferdous saimon
shakib khan ferdous saimon

রমজানের ঈদে কলকাতায় মুক্তি পেয়েছিল ‘ভাইজান এলো রে’। এই সিনেমার মূল আকর্ষণ হল শাকিব খান। ছবিটি এবার সাফটা চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে।

শোনা যাচ্ছে আগামী ২০ জুলাই বাংলাদেশে মুক্তি পাবে সিনেমাটি। দর্শকদের কাছে ‘ভাইজান এলো রে’ নিয়ে রয়েছে ব্যাপক আগ্রহ। এমনকি সিনেমা হল মালিকরাও আশায় বুক বেঁধে আছেন, ‘ভাইজান’ দিয়ে তাঁদের ব্যবসা চাঙ্গা করবেন।

আর এই ছবির কারণেই ২৭ জুলাই মুক্তির কথা থাকলেও বাংলাদেশের দুই ছবির মুক্তি পিছিয়ে গেছে। একটি মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত সাইমন-মাহি জুটির ‘জান্নাত’। আরেকটি মিনহাজ অভি পরিচালিত ফেরদৌস ও নিঝুম রুবিনা অভিনীত ‘মেঘকন্যা’। জানা যায়, ২৭ জুলাই ছবিদুটো মুক্তি পাচ্ছে না।

‘জান্নাত’ ছবির নায়ক সাইমন সাদিক বলেন, আগামী অক্টোবর মাসে ‘জান্নাত’ মুক্তি পাবে। আমাদের ছবিটা ভালো। বিশ্বকাপের পর মানুষ কিছুটা রেস্ট চাইবে। আমরা অক্টোবর মাসকে ‘জান্নাত’ মুক্তির উপযুক্ত সময় বলে মনে করি। বিশ্বকাপের পর ঈদুল আজহার আমেজ চলে আসবে। সে সময় মানুষ আবার হলমুখি হবে। শাকিব খানের ছবির জন্য পেছানো। ব্যাপারটি এমন কিছু নয়।

 

meghkonna jannat

তবে নিঝুম রুবিনা স্বীকার পেয়েছেন, ‘শাকিব খানের প্রতিদ্বন্ধী হতে তার ছবি রাজি নন। মুক্তি দিলে ব্যবসায়িকা ভাবে ক্ষতির মুখে পড়তে পারে! সবকিছু বিবেচনা করে মুক্তির সিদ্ধান্ত পেোনো হয়েছে ‘মেঘকন্যা’ ছবির ‘

চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি এক নেতা জানান, শাকিব খানের ‘ভাইজান এলো রে’ ছবি মুক্তি পাবে ২০ জুলাই। পরের মাস (আগস্ট) এর শেষ সপ্তাহে ঈদুল আজহা। ভাইজান ২০ জুলাই থেকে ঈদুল আজহা পর্যন্ত বিভিন্ন হলে প্রদর্শিত হবে। যার ফলে অন্য ছবিগুলো মার খেতে পারে! একারণেই কেউ চাচ্ছে না অন্য ছবি এর মধ্যে মুক্তি দেয়া হক।

এদিকে চলতি সপ্তাহে সেন্সর বোর্ডে জমা পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে ‘ভাইজান এলো রে’। সেন্সর ছাড়পত্র পেলেই ২০ জুলাই বাংলাদেশে ছবিটির মুক্তিতে আর কোনো বাঁধা থাকবে না। ‘ভাইজান এলো রে’র বিণিময়ে কলকাতায় যাচ্ছে ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here