আশার আলো শাহেনশাহ রুখতে দিলো না সিনেমা হল বন্ধ (ভিডিও)

বিশ্বে বিভিন্ন দেশের ছবি সময়ের ব্যবধানে যখন একটু একটু করে এগিয়ে যাচ্ছে তখন তার সাথে পাল্লা দিয়ে যেন পিছিয়ে পড়ছে বাংলা চললচ্চিত্র শিল্প। কেননা দেশের সিনেমা হল টিকিয়ে রাখার জন্য পর্যাপ্ত কনটেন্ট নেই। দীর্ঘদিন ধরে লোকসান গুনতে গুনতে হলের মালিকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। সিনেমা হলগুলোকে বাঁচানোর কিংবা দেশের ছবির উৎপাদন বাড়ানোর এবং উপমহাদেশের ছবি আমদানির বাঁধা-নিষেধ অপসারণে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা না পাওয়ায় দেশের হল বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত প্রদর্শক সমিতির নেতাদের।

আগামী ১২ এপ্রিল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হচ্ছে দেশের সব সিনেমা হল। সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলনে ডেকে এমন ঘোষণাই দিয়েছিলেন হল মালিক সমিতির সংগঠন ‘প্রদর্শক সমিতি’র নেতারা।

তাদের এমন সিদ্ধান্ত চলচ্চিত্র অঙ্গনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে। অনেকে সাধুবাদ জানালেও কড়া সমালোচনা করেছেন অভিনেতা অভিনেত্রীসহ চলচ্চিত্র নির্মাতাদের কেউ কেউ। তবে এই নিয়ে তেমন কোন মতামত দিতে রাজি নন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। কিন্তু মনের ক্ষোভ প্রকাশ করে শাকিব খান বলেন, এই দুর্দিনে চলচ্চিত্রকে বাঁচাতে কিছুটা হলেও তো আমার ভুমিকা আছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য আগামী ৩ এপ্রিল জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস পালিত হবে, কিন্তু সেখানে গতবারের মত এবারও কোথাও আমার নামটা রাখা হয়নি। তাই হল সিনেমা বন্ধ কিংবা চলচ্চিত্রের এমন সমস্যা নিয়ে আমি কোন মন্তব্য করার প্রয়োজন বোধ করছি না।

এদিকে প্রদর্শক সমিতির হল বন্ধের এমন সিদ্ধান্তে তা রুখতে বা কোন ধরনের আশ্বাস দিতে এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে না চলচ্চিত্রের কোন সংগঠনের। বরঞ্চ তাদের এমন ঘোষণার পর আরও বেড়েছে নতুন ছবির সংকট। কথা ছিলো ২২শে মার্চ মুক্তি পাবে শাকিব খানের ছবি ‘শাহেনশাহ’। কিন্তু তা আর হচ্ছে না। কেননা ছবির প্রযোজক লগ্নি টাকা উঠে আসার ভয়ে ছবির মুক্তি নিয়ে গেছেন আগামী রোজার ঈদে।

এই বিষয়ে প্রযোজক সেলিম খান বলেন, ‘শাহেনশাহ’ ছবিটি ২২শে মার্চ মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। এটি একটি বিগ বাজেটের ছবি, উৎসব ছাড়া যদি মুক্তি দেই তাইলে আমরা হলে তেমন দর্শক পাবো না। বিরাট অঙ্কের টাকায় প্রতিষ্ঠান মার খাবে, হিরোর বদনাম হবে, ডিয়ারেক্টরের বদনাম হবে, হল শুন্য যাবে এবং আমাদের যে লগ্নি টাকা করেছি সে টাকা ফেরত পাবো না বিধায় আমরা ডিসিশন চেঞ্জ করছি। ছবিটি ঈদে ১০০% রিলিজ দিবো।

এদিকে প্রযোজক সমিতির সিনেমা মুক্তির তালিকা বলছে, ১২ এপ্রিলের মধ্যে মুক্তির তালিকায় নেই আশা জাগানিয়া কোন ছবি। এই বিষয়ে প্রদর্শক সমিতির নেতা সুদীপ্ত কুমার দাস বলেন, যে ছবিটিকে কেন্দ্র করে সিনেমা হল মালিকরা একটু আশায় বুক বাঁধবে, যে ছবিটির জন্য সিনেমা হল চলবে কিছুদিন বা আমদের আল্টিমেটাম পিছিয়ে দিবো সেই ধরনের ছবিই নেই। যেমন শুনছিলাম ‘শাহেনশাহ’ ছবিটি আসবে, এটা এক্সপেক্টেড ভালো ছবি, কিন্তু সেটাও এখন আর আসতেছে না। এমনাতবস্থায় আমাদের সামনে আর কোন বিকল্প পথ নাই, দুই চোখ অন্ধকার।

ভিডিও:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here