ঈদে শাকিব খানের একক দাপটে মুক্তির মিছিলে আসছে না অন্য কারও ছবি

Shakib Khan
Shakib Khan

ঈদে কোন কোন সিনেমা মুক্তি পাবে, তা নিয়ে কয়েক মাস আগে থেকেই শুরু হয় তোড়জোড়। মুক্তির মিছিলে থাকে প্রায় ডজন খানেক সিনেমা। সর্বশেষ ক্ষমতা আর সিনেমার গুণগতমানের দৌঁড়ে গিয়ে এর সংখ্যা সর্বোচ্চ ৪-৫টিতে দাঁড়ায়। গত কয়েক বছর ধরেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে, এ দৌঁড়ে এগিয়ে থাকেন চিত্রনায়ক শাকিব খান অভিনীত সিনেমা। তার অভিনীত একাধিক সিনেমা ঈদে মুক্তি পেয়ে আসছে।

শাকিব খান এর সিনেমা মানেই দর্শক ও হল মালিকদের বাড়তি আগ্রহ। এবারো এ আগ্রহে ভাটা পড়েনি। আগামী ঈদুল ফিতরে মুক্তি প্রতীক্ষিত যে কটি সিনেমা রয়েছে, তার মধ্যে শাকিব খান অভিনীত ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়া’, ‘সুপার হিরো’, ‘পাঙ্কু জামাই’ ও ওপার বাংলার ‘ভাইজান এলো রে’ নামের চারটি সিনেমা রয়েছে। এদিকে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘পোড়ামন-২’ সিনেমাটি নতুন নায়ক-নায়িকাদের নিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। এই সিনেমাটি জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত বলে আলোচনায় রয়েছে। এমন মত চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের।

Super hero vs Chittagonga poya
Super hero Chittagonga poya

ঢাকাই চলচ্চিত্রে নায়ক-নায়িকার তালিকা দীর্ঘ না হলেও এর সংখ্যা কম নয়। সারা বছর এসব শিল্পীরা সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করেন। কিন্তু ঈদ বা উৎসবে এসব শিল্পীদের সিনেমা কেন মুক্তি পাচ্ছে না এমন প্রশ্ন অনেকের।

তা ছাড়া সাইমন-মাহি জুটির ‘জান্নাত’ সিনেমাটি মুক্তি প্রতীক্ষিত। মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত এই সিনেমাটি ঈদের পর মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা করছেন। কেন ঈদে আসছে না, তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ঈদে মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমার তালিকা লম্বা। এর মধ্যে আমাদের সিনেমা মুক্তি দেয়া খুবই কঠিন। এবারের ঈদে প্রভাবশালী তিন থেকে চারটা প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সিনেমা মুক্তি দেয়া হচ্ছে। বেশি প্রেক্ষাগৃহ পাওয়া নিয়ে তাদের মধ্যে স্নায়ু যুদ্ধ চলছে। আমাদের সিনেমার মেরিট ভালো কিন্তু এদের সঙ্গে টেক্কা দিয়ে পেরে উঠব না। তাই ঈদের পর বেশি সংখ্যক হলে সিনেমাটি মুক্তি দিতে চাচ্ছি। এছাড়া শাকিব ভাই অভিনীত চারটি সিনেমা মুক্তি পেলে অধিকাংশ সিনেমা হল তার অভিনীত সিনেমা নিয়ে নিবে। এর পর আমাদের সিনেমা মুক্তি দেয়া বোকামি হবে বলে মনে করছি।’

এদিকে নাম প্রকাশে অনইচ্ছুক এক পরিচালক বলেন, ‘ঈদ এলে দর্শক হলমুখী হন। কিন্তু এই সময় প্রভাবশালী প্রযোজকের দাপটে অন্য প্রযোজক পেরে উঠছে না। তাই বাধ্য হয়েই ঈদের পর সিনেমা মুক্তি দিচ্ছি। প্রযোজক অর্থ লগ্নী করেন সুন্দরভাবে সিনেমা মুক্তি দিতে পারলে আরো ভালো কিছু সিনেমা নির্মাণ হতো। মুক্তির এই জটিলতার কারণে প্রযোজক অর্থ লগ্নী করতে চাচ্ছেন না। শিল্পী ও প্রযোজকদের সিন্ডিকেটের কারণে অন্যরা ভিড়তে পারছেন না। এছাড়া ঈদে শাকিব খানের ছবির জন্য মুখিয়ে থাকে দর্শক এবং হল মালিকরা। তাই মুক্তির দৌড়ে অন্য কারও ছবি পেরে উঠতে পারে না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here